করোনা আক্রান্ত জানার পর খুলনা থেকে ঢাকায় পালালেন নারী

খুলনায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে এক নারী ঢাকায় পালিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

রবিবার (১০ মে) খুলনা মেডিকেল কলেজে (খুমেক) পিসিআর ল্যাবে তার করোনা টেস্ট রিপোর্ট পজিটিভ পাওয়া যায়। এরপর তাকে করোনা হাসপাতালে ভর্তি হতে বললেও তিনি ভর্তি না হয়ে গোপনে ঢাকায় ফিরে গেছেন।

করোনা আক্রান্ত নারীর বোন বলেন, তার বোনের স্বামী মতিন পিকআপ গাড়ির চালক। তাই তারা ঢাকা থেকে একসঙ্গে তার বাড়িতে এসেছিলেন। করোনা ধরা পড়ায় তিনি আবার ঢাকায় ফিরে গেছেন।

খুলনা সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহম্মেদ জানান, শনিবার ঢাকার কামরাঙ্গীচর থেকে স্বামী মতিনকে নিয়ে পিকআপ যোগে খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার সেনহাটি এলাকার মদিনা মসজিদের সামনে বোনকে দেখতে তার বাড়িতে আসেন পলি খাতুন। এরপর খুমেক হাসপাতালে তার করোনা টেস্টের নমুনা নেওয়া হয়। তিনি নমুনা দিয়েই সেনহাটি ফিরে যান। অথচ তাকে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার জন্য বলা হয়েছিল। তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসার পর গোপনে তিনি আবারও স্বামীকে নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে খুলনা ত্যাগ করেছেন।

সিভিল সার্জন আরও জানান, পলি খাতুন করোনা পজিটিভ। তাই তার বোন পপির বাড়িটি লকডাউন করার জন্য স্থানীয় প্রশাসনকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

খুলনা মে‌ডিকেল কলেজের উপাধ‌্যক্ষ ডা.মেহেদী নেওয়াজ বলেন, খুমেকের পিসিআর ল্যাবে রোববার ১৭২ টি নমুনার পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে ২ জনের পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। এরমধ‌্যে খুলনার ৬৯ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়, বাকীগুলো অন‌্য জেলার নমুনা।

খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ‌্য প‌রিচালক ডা. রাশিদা সুলতানা বলেন, সর্বশেষ তথ‌্য অনুযায়ী খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় এ পর্যন্ত মোট করোনা রোগী পাওয়া গিয়েছে ২০২ জনের।

Facebook Comments

Related Articles