নাটোরে আরও একজন স্বাস্থ্যকর্মী করোনা আক্রান্ত, অস্ত্রোপচার কক্ষ লকডাউন

নাটোরের লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরও একজন স্বাস্থ্য কর্মীর করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ কারণে তাঁর বাড়ি ও হাসপাতালের অস্ত্রোপচার কক্ষ লকডাউন করা হয়েছে। আজ বুধবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) উম্মুল বানিন দ্যুতি এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ইউএনও কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, হাসপাতালের অস্ত্রোপচার (ওটি) কক্ষে দৈনিক মজুরির ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া একজন ওটি সহকারীর নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল গত ৭ মে। তাঁর শরীরে করোনারভাইরাসের কোনো উপসর্গ ছিল না। অন্যান্য কর্মীদের সঙ্গে তিনি নমুনা দিয়েছিলেন। গতকাল মঙ্গলবার রাতে প্রথমে মুঠোফোনে ও পরে ইমেইলের মাধ্যমে তাঁর পরীক্ষার প্রতিবেদন পজিটিভ বলে জানানো হয়।

ঐ স্বাস্থ্যকর্মী এখন পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলায় নিজ গ্রামে অবস্থান করছেন। খবর পাওয়ার পর পরই গতকাল রাত ১১টার দিকে তাঁর গ্রামের বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করা হয়। সেখানে তাঁকে আইসোলেশনে থাকতে বলা হয়েছে।

এদিকে আজ বুধবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিষয়টি পর্যালোচনা করে হাসপাতালের অস্ত্রোপচার কক্ষ পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেন। একই সঙ্গে আক্রান্ত স্বাস্থ্যকর্মীর সঙ্গে যাঁরা যাঁরা কাজ করেছেন, তাঁদের নমুনা সংগ্রহের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, এ পর্যন্ত লালপুর উপজেলায় তিনজনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। তাঁদের মধ্যে দুজনই লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্যকর্মী।গত ৫ মে হাসপাতালের টেলি মেডিসিন বিভাগের এক স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত হন। ওইদিন থেকে ওই বিভাগ লকডাউন রয়েছে। ৯ মে হাসপাতালের পার্শ্ববর্তী এলাকার এক যুবক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। তাঁকে বাড়িতে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।
তিনি আরও জানান,এ পর্যন্ত লালপুর উপজেলায় ১৭১টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে তিনটি পজিটিভ ও ৬৮টির ফল নেগেটিভ এসেছে। বাকি ১০০টির ফলাফল পাওয়া যায়নি এখনও।

ইউএনও উম্মুল বানিন দ্যুতি জানান, ফলে ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে নতুন আক্রান্ত স্বাস্থ্যকর্মীর বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। সেখানের পুলিশ লকডাউন পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করবেন।

Facebook Comments

Related Articles