অনলাইনে ক্লাস করতে না পারায় ছাত্রীর আত্মহত্যা

অনলাইনে ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে না পারায় ভারতের কেরালা রাজ্যে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সোমবার রাজ্যের মালাপ্পুরাম জেলায় এ ঘটনা ঘটেছে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, এদিন সকালে অনলাইনে ক্লাস শুরু হয়। তার বাসায় টিভি বা হাতে স্মার্ট ফোন না থাকায় সে অনলাইনে ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। এ ঘটনার পরে তাকে বাসায় বাড়িতে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। দুপুরের পরে বাড়ির পাশে পরিত্যক্ত জায়গায় তার লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়।

পুলিশ জানিয়েছে, সে খুব ভালো ছাত্রী ছিলো। তার গায়ে আগুন লাগিয়ে সে আত্মহত্যা করেছে।

নিহত শিক্ষার্থীর বাবা সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের বাসায় একটি টিভি রয়েছে তবে সেটি কাজ করছে না। সে বলেছিল টিভি ঠিক করতে তবে আমি করতে পারিনি। আমি তাকে একটি স্মার্ট ফোনও দিতে পারিনি। করোনা পরিস্থিতির কারণে স্বল্প আয়ে কোনো রকমে দিন চালিয়ে যাচ্ছিলেন কিশোরী শিক্ষার্থীর দিনমজুর বাবা।

তিনি আরও জানান, আমি জানিনা ও কেন এমন করেছে। আমি বলেছিলাম অন্য উপায় ঠিক হবে, বন্ধুর বাড়িতে গিয়ে পড়া যাবে।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের কারণে ভারতে লকডাউন জারি হওয়ায় মার্চ মাসে স্কুল ও কলেজ বন্ধ করা হয়েছিল। দেশটিতে গত রোববার লকডাউন ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

Facebook Comments

Related Articles