স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউ প্রধান ডা. মির্জা নাজিম উদ্দিন মারা গেলেন করোনায়

এবার করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর সঙ্গে প্রায় একমাস লড়াই করে শেষ পর্যন্ত মারাই গেলেন স্কয়ার হাসপাতালের পরিচালক (মেডিকেল সার্ভিস) ও আইসিইউ বিভাগের প্রধান ডা. মির্জা নাজিম উদ্দিন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। রোববার বিকেলে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

তিনি করোনা পজিটিভ হলে স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে গত একমাস ধরে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তাকে প্লাজমা থেরাপিসহ উন্নত বিভিন্ন দেশের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিভিন্ন চিকিৎসা দেওয়া হয়েছিল। স্কয়ার হাসপাতালে কর্মরত তার স্ত্রী গাইনী চিকিৎসক ডা. খালেদা ইয়াসমিন মির্জা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ডা. মির্জা একমাস আগে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে আইসিইতে চিকিৎসা চলছিল। চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ রোববার আনুমানিক বেলা ৩টা ৫৫ মিনিটে তার মৃত্যু হয়।এছাড়া তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও মহাসচিব ডা. মো. ইহতেশামুল হক চৌধুরী।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ডা. খালেদা ইয়াসমিন মির্জা, দুই পুত্র, এক কন্যা, পরিবার পরিজন, বন্ধু-স্বজন সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন ডা. মির্জা নাজিম উদ্দিন এর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেছে।

ফাউন্ডেশন ফর ডক্টরস সেফটি, রাইটস অ্যান্ড রেসপনসিবিলিটিস-এফডিএসআর নামে একটি সংগঠনের তথ্য মতে, গত ৫ জুন পর্যন্ত দেশে কভিড-১৯ আক্রান্ত ১ হাজার ৩৭ জন চিকিৎসকের মধ্যে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া কভিড-১৯-এর উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে পাঁচজনের।

Facebook Comments

Related Articles