স্যামিকে ‘কালু’ ডাকতেন ঈশান্ত শর্মা

ড্যারেন স্যামি ও থিসারা পেরেরাকে ‘কালু’ বলে ডাকতেন আইপিএলে সানরাইজ হায়দরাবাদে খেলা তাদেরই সতীর্থ। যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬ বছর বয়সী কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের হত্যাকাণ্ডের পরই বর্ণবাদী এই শব্দের অর্থ জানতে পেরেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক অধিনায়ক স্যামি। এটা যে তাঁর গায়ের রং কালো বলে ডাকা হতো, সেটা জেনে বেশ চটেছেন ক্যারিবিয়ান তারকা। অবশ্য এটা নিয়ে গণমাধ্যমে তোলপাড় হওয়ার পরপরই স্যামির সতীর্থরা বিষয়টা অস্বীকার করতে শুরু করেন। কিন্তু সেটার প্রমাণ এবার মিলল, সত্যিই তাকে কালু বলে ডাকা হতো। আর এই নামে ডাকতেন তাঁর ওই সময়ের সতীর্থ ভারতীয় পেসার ঈশান্ত শর্মা।

স্যামি সান রাইজার্সে খেলার সময়ের একটা ইনস্টাগ্রাম ছবি এরই মধ্যে ভাইরাল হয়েছে। এতে দেখা গেছে স্যামিকে ‘কালু’ বলে সম্বোধন করেছেন ঈশান্ত শর্মা। ২০১৪ সালের ওই ছবিতে আছেন ড্যারেন স্যামি, ঈশান্ত শর্মা, ভুবনেশ্বর কুমার ও ডেল স্টেইন। ঈশান্তের নিজের পোস্ট করা ছবির ক্যাপশনে লেখা, ‘আমি, ভুবি, কালু ও গান রাইজার্স।’

এই জলজ্যান্ত প্রমাণ দেখিয়ে স্যামি আরেকটি ভিডিও পোস্ট করেছেন ‘নলেজ ইজ পাওয়ার’ নামে। সেখানে তিনি বলেছেন, ‘সম্প্রতি এমন একটা শব্দের অর্থ জানলাম যেটা সম্পর্কে আগে কিছু জানতাম না। আমি প্রকাশ্যে তাদের নাম বলার আগে চাই যেন তারা আমাকে ব্যক্তিগতভাবে ফোন করে বলে যে এই শব্দের অন্য মানে আছে। আমাকে যখন এই নামে ডাকা হয়েছে, পুরোটাই ভালোবেসে করা হয়েছে।’

স্যামি এরই মধ্যে বর্ণবাদ বিদ্বেষী মন্তব্যের বিরুদ্ধে আইসিসিকে জেগে উঠতে অনুরোধ করেছেন।

Facebook Comments

Related Articles