বাংলাদেশে থাকা সাড়ে ১১ লাখ রোহিঙ্গার প্রত্যাবাসন হবে কবে

বাংলাদেশে মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের অবস্থানকাল বছর তিনেক হয়ে গেল। একে তো সম্পদ সীমিত, তার ওপর জনবহুল দেশ, এ কারণে বাংলাদেশের জন্য রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর সাড়ে ১১ লাখ মানুষের অবস্থান অবশ্যই বাড়তি একটি চাপ। তাই তাদের প্রত্যাবাসন খুব জরুরি। কিন্তু মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে না নিতে অনড়। রাশিয়া ও চীনের মতো প্রভাবশালী দেশগুলোর অব্যাহত সমর্থনে এই সাহস দেখাচ্ছে তারা।

এ মুহূর্তে সাত কোটিরও বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়ে আশ্রয় নিয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর বাস্তুচ্যুত মানুষের সংখ্যা এটাই সবচেয়ে বেশি। বাস্তুচ্যুত মানুষের মধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে শরণার্থীর সংখ্যা ২ কোটি ৫৯ লাখ। তাদের অর্ধেকের বয়স ১৮ বছরের কম। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে শরণার্থীদের দুই-তৃতীয়াংশের উৎস পাঁচটি দেশ—সিরিয়া, ভেনেজুয়েলা, আফগানিস্তান, দক্ষিণ সুদান ও মিয়ানমার।

আজ ২০ জুন বিশ্ব শরণার্থী দিবস উপলক্ষে জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা (ইউএনএইচসিআর) প্রকাশ করেছে তাদের বার্ষিক প্রতিবেদন গ্লোবাল ট্রেন্ডস রিপোর্ট। গত বৃহস্পতিবার জেনেভা থেকে প্রকাশিত এই প্রতিবেদনে এসব তথ্য দেওয়া হয়েছে।

 

Facebook Comments

Related Articles