ভেবেচিন্তে কথা বলা বলুন: মোদিকে মনমোহন

লাদাখ উপত্যকায় চীনা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হওয়ার ঘটনা নিয়ে মুখ খুললেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং।

সোমবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে ‘সবসময়ই তিনি কী বলছেন সেই সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে’। খবর এনডিটিভি।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেন, কর্নেল বি সন্তোষ ও আমাদের যেসব সেনা সদস্য দেশের আঞ্চলিক অখণ্ডতা রক্ষা করতে চূড়ান্ত ত্যাগ স্বীকার করেছেন, তারা যাতে ন্যায়বিচার পান তা প্রধানমন্ত্রী এবং তার সরকারকে অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে।

গলওয়ান উপত্যকায় গত ১৫ জুন যে ভয়াবহ সংঘর্ষের মুখোমুখি হয় ভারতীয় সেনা তার প্রথম প্রতিক্রিয়ায় মনমোহন সিং বলেন, এবার জবাব না দেয়া হলে জনগণের বিশ্বাসের প্রতি ঐতিহাসিক বিশ্বাসঘাতকতা করা হবে।

তিনি আরও বলেন, এই মুহূর্তে, আমরা ঐতিহাসিক মোড়ের মুখে দাঁড়িয়ে আছি। আমাদের সরকারের সিদ্ধান্ত ও পদক্ষেপই ঠিক করে দেবে যে ভবিষ্যত প্রজন্ম আমাদের সম্বন্ধে কী উপলব্ধি করবে। যারা আমাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদেরই একান্তভাবে এই দায়িত্বের ভার বহন করতে হবে এবং আমাদের গণতন্ত্রে এই দায়িত্বটি থাকে প্রধানমন্ত্রীর দফতরের ওপর।

‘তাই প্রধানমন্ত্রীকে অবশ্যই তিনি কী বলছেন এবং আমাদের জাতির সুরক্ষা নিশ্চিত করতে যে যে ঘোষণাগুলো করছেন তার প্রভাব সম্পর্কে সব সময় সচেতন থাকতে হবে।’

শুক্রবার সর্বদলীয় বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, ‘ভারতীয় সীমান্তের ভেতরে কেউ ঢুকতে পারেনি, কোনো পোস্টও দখল করতে পারেনি
তারা।’

লাদাখ উপত্যকায় চীনা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হওয়ার ঘটনা নিয়ে মুখ খুললেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং।

সোমবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে ‘সবসময়ই তিনি কী বলছেন সেই সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে’। খবর এনডিটিভি।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেন, কর্নেল বি সন্তোষ ও আমাদের যেসব সেনা সদস্য দেশের আঞ্চলিক অখণ্ডতা রক্ষা করতে চূড়ান্ত ত্যাগ স্বীকার করেছেন, তারা যাতে ন্যায়বিচার পান তা প্রধানমন্ত্রী এবং তার সরকারকে অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে।

গলওয়ান উপত্যকায় গত ১৫ জুন যে ভয়াবহ সংঘর্ষের মুখোমুখি হয় ভারতীয় সেনা তার প্রথম প্রতিক্রিয়ায় মনমোহন সিং বলেন, এবার জবাব না দেয়া হলে জনগণের বিশ্বাসের প্রতি ঐতিহাসিক বিশ্বাসঘাতকতা করা হবে।

তিনি আরও বলেন, এই মুহূর্তে, আমরা ঐতিহাসিক মোড়ের মুখে দাঁড়িয়ে আছি। আমাদের সরকারের সিদ্ধান্ত ও পদক্ষেপই ঠিক করে দেবে যে ভবিষ্যত প্রজন্ম আমাদের সম্বন্ধে কী উপলব্ধি করবে। যারা আমাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদেরই একান্তভাবে এই দায়িত্বের ভার বহন করতে হবে এবং আমাদের গণতন্ত্রে এই দায়িত্বটি থাকে প্রধানমন্ত্রীর দফতরের ওপর।

‘তাই প্রধানমন্ত্রীকে অবশ্যই তিনি কী বলছেন এবং আমাদের জাতির সুরক্ষা নিশ্চিত করতে যে যে ঘোষণাগুলো করছেন তার প্রভাব সম্পর্কে সব সময় সচেতন থাকতে হবে।’

শুক্রবার সর্বদলীয় বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, ‘ভারতীয় সীমান্তের ভেতরে কেউ ঢুকতে পারেনি, কোনো পোস্টও দখল করতে পারেনি
তারা।’

Facebook Comments

Related Articles

Close