ডাক্তারদের নিয়ে অপ্রাসঙ্গিক অভিযোগ সাংবাদিকের; হেনস্থা ডাক্তার সমাজ

বুধবার,১৫ জুলাই,২০২০

গত দুই দিন আগে আরটিভি চ্যানেলে অনুষ্ঠিত হয় একটি লাইভ টকশো। আওয়ার ডেমোক্রেসি শীর্ষক এই অনুষ্ঠানের বিষয় ছিল স্বাস্থ্য খাতে হচ্ছে টা কি? স্বাস্থ্য খাত নিয়ে কথা বলতে গিয়ে, খাতের এত গুলো শাখাকে বাদ দিয়ে যেন শুধু ডাক্তার সমাজকেই প্রশ্নবিদ্ধ করতে ব্যস্ত ছিলেন সঞ্চালক।

অনুষ্ঠানে সঞ্চালনা করছিলেন রোবায়েত ফেরদৌস। উপস্থিত অতিথি হিসেবে ছিলেন সংসদ সদস্য শামীম ওসমান, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, বিএসএমএমইউ এর সাবেক প্রো- ভিসি ডা. শহীদুল্লাহ সিকদার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিমিনলজি বিভাগের প্রতিষ্ঠা চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. জিয়া রহমান এবং সিনিয়র সাংবাদিক এমএ আজিজ।

অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে যখন ডা. শহীদুল্লাহ সিকদার স্যারকে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া রিজেন্ট হাসপাতালের কর্মকান্ড ও সাবরিনা আরিফ প্রশ্ন প্রশ্ন করা হয় তখন অতিথির ভাষ্যকে গুরুত্ব না দিয়ে একের পর এক অভিযোগ আনা হয় সমস্ত ডাক্তার সমাজ নিয়ে।

ডা. শহীদুল্লাহ সিকদার বার বার বোঝানোর চেষ্টা করছিলেন, একটি ব্যতিক্রমী উদাহরনের সাথে তুলনা করে সমস্ত ডাক্তারদের উপর প্রশ্ন তোলা যায় না। যারা এই চিকিৎসার মত মহৎ পেশাকে কলুষিত করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবিস্থা নিতে হবে। এছাড়া তিনি উল্লেখ করেন, রিজেন্ট হাসপাতালের দুর্নীতি সম্পূর্ণ মালিকের ব্যাবসায়ীক চিন্তা ভাবনার জন্যই সংঘটিত হয়েছে। এক্ষেত্রে ডাক্তারদের হাত নেই।

কিন্ত সঞ্চালক বিচ্ছিন্ন ঘটনার সূত্র ধরে একের পর এক অপ্রাসঙ্গিক অভিযোগ তুলেছেন। কখনো দাবি করেছেন, ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি থেকে ঘুষ নেয়া, কখনো বা বলেছেন প্রয়োজনের চেয়ে বেশি টেস্ট করার পরামর্শ দেয়া, এছাড়া সম্প্রতি ঘটিত বিষয় গুলোর অপবাদ দেয়া হচ্ছে সম্পূর্ন ডাক্তার সমাজ কে।

অথচ দুর্নীতি ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে প্রায় প্রত্যেকটি খাতের প্রত্যেক শাখায়। সে বিষয় গুলোকে আলোকপাত না করে স্বাস্থ্যখাতের ফ্রন্টলাইনারদের উপরই কেন কেন গুলি বর্ষন করা হচ্ছে? এটিই কি তবে অনুষ্ঠানের মূল উদ্দেশ্য ছিল?

আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন::
লাইক দিন: https://www.facebook.com/eisomoy365/ (‘এই সময়’ ফেসবুক পেইজ)
সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে: https://youtu.be/ZBMTaqUNbh4

Facebook Comments

Related Articles