৪ বারের এমপি বাঙলা হোটেলে যখন সস্তা ডিম ভাত খায়

সাহেদ, সাবরিনা দের নিয়ে ফেসবুক সয়লাব কিন্তু দেশের ভাল মানুষদের, ভাল কাজের প্রচার আমরা করি না। এই কারনে ভাল কিছু আমরা শিখি না। সকালে ঘুম থেকে উঠেই নেগেটিভ পোস্ট। দেশে মনে হয় ভাল মানুষ নাই, ভাল কাজ হয় না!!! যদিও ডিমভাত খাওয়াই ভালো কাজ কিনা এটা প্রশ্ন করতে পারেন, তবে এটা আসলে একটা বার্তা দেয় সমাজকে। একজন জনপ্রতিনিধি বা সাবেক মন্ত্রীর সাদাসিধে জীবনযাপনের প্রতিচ্ছবি সমাজের মানুষকে আশাবাদী করে।

জনাব আবুল কালাম আজাদ, জামালপুর-১ আসনের ৪বার নির্বাচিত মাননীয় সফল সংসদ সদস্য, চেয়ারম্যান পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সংসদীয় স্থায়ী কমিটি,এবং সাবেক তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী। দেওয়ানগঞ্জের একটি সাধারন হোটেলে ডিম দিয়ে খাবার খাচ্ছেন, তিনি স্পেশাল সিকিউরিটি ছাড়াই অনেকসময় একাই পায়ে হেটে এলাকায় গণসংযোগ করেন। আজকাল পাতিনেতাদের ভিড়ে আসল নেতার কাছে জনগণ যেতে পারেনা। সেক্ষেত্রে ব্যতিক্রম আমাদের এই এমপি।

এমপি হলেই অনেকে মনে করে আমি রাজত্ব পেয়ে গেছি। অথচ সে জনগণের একজন প্রতিনিধি মাত্র৷ এই বিবেকটা আমাদের সকল আসনের এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যানদের মাঝে জাগ্রত হোক।

একজন সাদা মনের মানুষ হিসেবে আবুল কালাম আজাদের কাছে আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে৷

মূল লেখাঃ মোঃ ফজলুল হক

Facebook Comments

Related Articles