সাবরিনার পোশাক তার দেহ ঢাকতে না পারলেও,ঢেকেছে অনেক রাঘব বোয়ালের দুর্নীতি

মঙ্গলবার, ২১ জুলাই,২০২০

কথাটা বাজে শোনালেও এটাই সত্য।আমাদের সব ফোকাস তার ড্রেসআপে চলে গেছে।
কিভাবে সাবরিনার ছোট ড্রেসে ঢেকে গেলো এতো বড় রাঘব বোয়ালরা?আসুন দেখি..

মিঠুঃ ২০১৬ সালে বিশ্বে তোলপাড় করা পানামা পেপারস কেলেঙ্কারি সংশ্লিষ্টতায় বিদেশে বিপুল পরিমাণ অর্থপাচারকারী হিসেবে যে ৩৪ বাংলাদেশির নাম এসেছিল, মোতাজ্জেরুল ইসলাম মিঠু তাদের একজন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে এই মিঠু সিন্ডিকেটের সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী আবজাল দম্পত্তি ১৫ হাজার কোটি টাকার মালিক বনে যাওয়ারও চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে এসেছে অনেক আগেই।
যেই মিঠুর পিছনে স্বাস্থ্যমন্ত্রনায়ের অনেকের হাত থাকার অভিযোগও রয়েছে,সেই মিঠু যখন এই করোনাকালিন দূর্যোগে আবার আলোচনায়, ঠিক তখনই আমাদের ফোকাস চলে গেলো শাহেদে।

বুদ্ধিজীবী শাহেদঃ তিনি বেসরকারি টিভির বুদ্ধিজীবী! টেলিভিশন খুললেই ভেসে ওঠে তার ছবি। নীতিকথা, ভয়ঙ্কর ধমক, প্রতিপক্ষকে হুমকি, মানবতার কথা, চিকিৎসা বিজ্ঞান, রাজনীতি, অর্থনীতি, সমাজনীতি, ভূগোল, পৌরনীতি হেন তেন কোনো বিষয় নেই যে সে বিষয়ে তিনি বিজ্ঞ নন। সব বিষয়ে জাতিকে জ্ঞানদান করেন। প্রতিদিন তিন-চারটি টিভিতে টকশো করেন
অথচ রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখায় র‌্যাবের অভিযানের পর দেশবাসী জানতে পারে তিনি ভয়ঙ্কর প্রতারক। প্রতারণা করে মানুষ ঠকানোই তার পেশা। তিনি ক্ষমতাসীন দলের রথী-মহারথি এবং প্রশাসনের চোখে ধুলো দিয়ে ৬ বছর আগে লাইসেন্সের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া রিজেন্ট হাসপাতালে করোনা চিকিৎসার সরকারি অনুমোদন নিয়েছেন। করোনা চিকিৎসার নামে ভয়াবহ প্রতারণা মাধ্যমে তিনি কিভাবে মানুষকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়েছেন; কিভাবে সরকারের কোষাগার থেকে কোটি কোটি টাকা বিল নিয়েছেন তা প্রকাশ করেছে র‌্যাব।এইখানেও যোগসূত্র পাওয়া গেছে স্বাথ্যমন্ত্রনালয়ের অনেক বড় রাঘবদের। এইবারও শাহেদ এক্সপোজড হলেন দেশের সামনে।
কতোদিন পরই তার ত্রানকর্তা হয়ে দাড়ান জেকেজি গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা আরিফ চৌধুরী।

আরিফ চৌধুরীঃ যিনি মানবতার সেবার কথা বলে করোনা টেস্ট করে নিজেদের মতো মনগড়া রিপোর্ট দিয়ে হাতিয়ে নিয়েছে প্রায় ১৪ কোটি টাকা।
তার ত্রানকর্তা হয়ে দাড়ালো তার স্ত্রী সাবরিনা চৌধুরী।

সাবরিনা চৌধুরীঃ তিনি জেকেজির চেয়্যারম্যান নাকি চেয়্যারমান না তা খুজতে লেগে আছে মিডিয়া সহো দেশের সবাই। এই বিষয়ের থেকেও আমরা বেশি যেই জায়গায় ফোকাস দিয়েছি তা হলো তার খুলা মেলা ড্রেস😅 টিস্যুর মতো ছুড়ে ফেলে দিয়েছি অনান্য রাঘব বোয়ালের দূর্নিতীর খবর।
তার এই খোলা মেলা ড্রেসআপ ভুলিয়ে দিয়েছে k95 মাস্ক, ঢামেকের ডাক্তারদের 20 কোটি টাকার খাবারের খরচ দেখানো থেকে শুরু করে বড় বড় দূর্নিতী সহো দেশের স্বাস্থ্যখাতের এই বেহাল অবস্থা। সবই ঢেকে গেলো তার ছোট ড্রেসের আড়ালে।

যে জাতি কাপড়ের ভাজে শুধু মাংসপিন্ড খুঁজে,সে জাতিকে বার বার ঠকিয়ে যাবে মিঠু,শাহেদ,আরিফ সহো মন্ত্রনালয়ের আরো বড় বড় রাঘব বোয়ালেরা।
আর জাতি পড়ে থাাকবে কাপড়ের আড়ালে মাংসপিন্ডের খোঁজে।

নিজস্ব প্রতিবেদক
সিজান শেখ

আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন::
লাইক দিন: https://www.facebook.com/eisomoy365/ (‘এই সময়’ ফেসবুক পেইজ)
সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে: https://youtu.be/ZBMTaqUNbh4

Facebook Comments

Related Articles

Close