‘করোনা রুখে দেবে কাঁঠাল’— এই খবরে আসাম থেকে কাঁঠাল উধাও!

করোনা রুখে দেবে কাঁঠাল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন খবর চাউর হলে রাতারাতি কাঁঠালের বিক্রি বেড়ে গেছে ভারতে। বিশেষ করে আসামের বিভিন্ন এলাকায় বাজার থেকে উধাও কাঁঠাল। একই সঙ্গে বিপুল চাহিদা বেড়ে গেছে কাঁঠালের বিচিরও। অ্যামাজনে কাঁঠালের বীজ এক একটি ১৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তাও আবার ৪৭ শতাংশ ডিসকাউন্ট দেয়ার পরে।

আসলে কাঁঠাল ও কাঁঠালের বিচি- দুটিই শরীরের জন্য ভীষণ উপকারী। একেবারে ভিটামিন, মিনারেলে ঠাসা। পুষ্টিবিদরা বলছেন, কাঁঠালে বিটা ক্যারোটিন, ভিটামিন এ, সি, বি-১, বি-২, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়ামসহ নানা রকমের পুষ্টি ও খনিজ উপাদান রয়েছে। ফলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়ে যায়।কাঁঠালে আছে থায়ামিন, রিবোফ্লাভিন, ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, আয়রন, সোডিয়াম, জিঙ্ক এবং নায়াসিনসহ বিভিন্ন প্রকার পুষ্টি উপাদান। আছে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট।
কাঁঠালে চর্বির পরিমাণ সামান্য। এ ফল খাওয়ার কারণে ওজন বৃদ্ধির আশঙ্কা কম। কাঁঠাল পটাশিয়ামের উৎকৃষ্ট উৎস। ১০০ গ্রাম কাঁঠালে পটাশিয়ামের পরিমাণ ৩০৩ মিলিগ্রাম। এ পটাশিয়াম উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। এ জন্য কাঁঠাল উচ্চ রক্তচাপে উপশম করে।

কাঁঠালে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন-সি। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে ভিটামিন সি। দাঁতের মাড়িকেও শক্তিশালী করে। কাঁঠালে চর্বির পরিমাণ সামান্য। এ ফল খাওয়ার কারণে ওজন বৃদ্ধির আশঙ্কা কম। কাঁঠাল পটাশিয়ামের উৎকৃষ্ট উৎস। ১০০ গ্রাম কাঁঠালে পটাশিয়ামের পরিমাণ ৩০৩ মিলিগ্রাম। এই পটাশিয়াম উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। এ জন্য কাঁঠাল উচ্চ রক্তচাপে উপশম করে। কাঁঠালে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন-সি। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে করে ভিটামিন সি। দাঁতের মাড়িকেও শক্তিশালী করে।
কাঁঠালে আছে ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস। যা আলসার, ক্যান্সার, উচ্চ রক্তচাপ এবং বার্ধক্য প্রতিরোধে সহায়তা করে। অবসাদ ও দুশ্চিন্তা কমাতেও কাঁঠাল বেশ কার্যকরী। বদহজম রোধ করে কাঁঠাল। এ ফল আঁশালো হওয়ায় কোষ্ঠকাঠিন্যও দূর করে।

Facebook Comments

Related Articles

Close