সব রেকর্ড ভেঙ্গেছে রেমিট্যান্স ও রিজার্ভ

প্রথমবারের মত দেশে এত বেশি রেমিট্যান্স এসেছে যা বাংলাদেশের ইতিহাসে আর কখনো হয়নি। জুলাই এর ১ তারিখ থেকে ২৭ তারিখ পর্যন্ত রেমিট্যান্স এসেছে ২২৪ কোটি ডলার বা $২.২৪ বিলিয়ন ডলার। এখনো মাস শেষ হবার প্রাতিষ্ঠানিকভাবে দুই দিন বাকি। আশা করা যাচ্ছে এবার একক মাস হিসাবে জুলাই মাস ইতিহাসের সব রেকর্ড ভেঙ্গে $২.৫ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করবে।

গত জুন মাসে পুরো সময়ে রেমিট্যান্স এসেছিল $১.৮৩৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এটি গত বছরের একই সময়ের চেয়ে প্রায় ৩৯ শতাংশ এবং মে মাসের চেয়ে প্রায় ২২ শতাংশ বেশি ছিল। এখন সেই রেকর্ড ভেঙ্গে নতুন রেকর্ড হয়েছে চলতি মাসের মাত্র ২৭ দিনেই।

পাশাপাশি চলতি মাসের ২৭ তারিখ পর্যন্ত দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৩৭ দশমিক ১০ বিলিয়ন ডলারের নতুন রেকর্ড ছুঁয়েছে। বাংলাদেশের ইতিহাসে যা এযাবতকালের মধ্যে সর্বোচ্চ।

গত ৩০ জুন বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ছিল $৩৬.০১৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। সেটিই ছিল রেকর্ড রিজার্ভ। মাত্র এক মাসের ব্যবধানে নতুন রেকর্ড করে রিজার্ভ পৌঁছেছে $৩৭.১০ বিলিয়ন ডলারে। ২০১৯ সালের ৩০ জুন বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ছিল $৩২.৭১৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। সেই হিসাবে এক বছরে রিজার্ভ বৃদ্ধি পেয়েছে প্রায় $৫ বিলিয়ন ডলার।

সকল রেমিট্যান্স এ ২% অতিরিক্ত প্রণোদনা দেয়ায় হুন্ডির মাধ্যমে আসা টাকার পরিমান কমে গিয়েছে। প্রবাসীদের অক্লান্ত পরিশ্রমে অর্জিত অর্থের উপর ভিত্তি করেই বাংলাদেশে আজ একক মাস হিসাবে রেমিট্যান্স প্রবাহ এবং রিজার্ভে রেকর্ড সম্ভব হয়েছে।

সৌজন্যেঃ রিসার্চ ডিফেন্স ফোরাম

Facebook Comments

Related Articles

Close