অবসরের ঘোষণা দিলেন বিশ্বকাপজয়ী গোলরক্ষক ক্যাসিয়াস

অবশেষে বিদায় নিলেন স্পেন ও রিয়াল মাদ্রিদের কিংবদন্তী গোল রক্ষক ইকার ক্যাসিয়াস। এর আগে হার্ট এ্যাটাকের কারণে প্রায় এক বছর মাঠের বাইরে ছিলেন এই গোলরক্ষক। এরপর মঙ্গলবার হঠাৎ করেই অবসরের ঘোষনা দেন ৩৯ বছর বয়সী ক্যাসিয়াস। এর মাধ্যমে তিনি অবসান ঘটালেন তার ২২ বছরের বর্নাঢ্য ক্যারিয়ারের।

দেশের হয়ে তার অর্জনের মধ্যে রয়েছে দুটি ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ এবং একটি বিশ্বকাপ। ২০০৮ ও ২০১২ সালে ইউরো ও ২০১০ সালে বিশ্বকাপ জয় করা স্পেন দলের সদস্য ছিলেন ক্যাসিয়াস।
ক্লাব ফুটবলেও সাফল্যে রঙ্গিন দিন দেখেছেন ক্যাসিয়াস। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে পাঁচবার লা-লিগা ও তিনবার চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছেন । রিয়ালের হয়ে ৭শর বেশি ম্যাচ খেলেছেন তিনি।
নিজের অবসর নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে ক্যাসিয়াস বলেন অবসর গ্রহণের দিনটি তার জীবনের সবচেয়ে কঠিনতম একটি দিন, তবে বিদায় বলার এটিই উপযুক্ত সময়।

১৯৯০ সালে রিয়াল মাদ্রিদে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন ক্যাসিয়াস। এরপর ১৯৯৯ সালে রিয়াল মাদ্রিদের সিনিয়র দলে অভিষেক হয় তার। ২০১৫ সাল পর্যন্ত রিয়ালে খেলেন তিনি। এরপর রিয়াল ছেড়ে পর্তুগীজ ক্লাব পোর্তোতে যোগ দেন ক্যাসিয়াস। পোর্তোর হয়ে চার মৌসুমে ১১৬টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি।
২০০০ সালে স্পেন জাতীয় দলে যোগ দেন ক্যাসিয়াস। ১৬ বছর দাপটের সাথে স্পেনের গোলবার সামলিয়েছেন তিনি। এ সময় ১৬৭টি ম্যাচ খেলেছেন ক্যাসিয়াস।

ক্যাসিয়ারের অবসর ঘোষনার পর সাবেক ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ ও তার অবদান জানাতে ভুলেনি। এক বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে ক্যাসিয়াস রিয়াল মাদ্রিদের ফুটবল ইতিহাসে অন্যতম সেরা গোলরক্ষক । মাত্র ৯ বছর বয়সে স্প্যানিশ ক্লাবে যোগ দিয়েও পারফরমেন্স কোন কমতি রাখেননি তিনি। ২৫ বছর আমাদের জার্সি আগলে ছিলো। এমনকি ক্যাসিয়াস যে রিয়াল মাদ্রিদের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ গোলরক্ষক হয়ে উঠেছিলেন তা জানাতেও ভুলেনি ক্লাবটি। ১১৮ বছরের ইতিহাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলারকে পেশাগত খেলোয়াড় হিসেবে গড়ে তুলেছে, সে এমন একজন খেলোয়াড় যে সমর্থকদের সর্বোচ্চ ভালোবাসা ও প্রশংসা পাওয়ার যোগ্য। এছাড়াও ক্লাবটি তাদের বিবৃতিতে আরও জানায়, তিনি এমন একজন গোলরক্ষক, যিনি তার কাজ দিয়ে রিয়াল মাদ্রিদকে আরও বেশি জনপ্রিয় করেছেন। মাঠ ও মাঠের বাইরে তার আচরন ছিল সবার জন্য অনুকরণীয়।

Facebook Comments

Related Articles