শহীদ মিনারে শওকত আলীর মরদেহে ছাত্রলীগের শ্রদ্ধা

সোমবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২০

মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, ঐতিহাসিক আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার অন্যতম আসামি, জাতীয় সংসদের সাবেক ডেপুটি স্পীকার কর্নেল (অব.) শওকত আলীর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে ছাত্রলীগ।
সোমবার (১৬ নভেম্বর) বিকেল ৩:৩০টায় সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কর্নেল (অব.) শওকত আলীর মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেওয়া হয়।এসময় ছাত্রলীগ সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয়ের নেতৃত্বে সংগঠনের কেন্দ্রীয়, বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

কর্নেল (অব.) শওকত আলী ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।
১৯৬৮ সালে বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে যে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা হয়েছিলো, তাতে শওকত আলীকে ২৬ নম্বর আসামি করা হয়। ১৯৬৮ সালের ১০ জানুয়ারি ক্যাপ্টেন পদে থাকা অবস্থায় তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তানে ক্যান্টনমেন্ট থেকে আটক করার পর ওই মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

শওকত আলী ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন। স্বাধীনতার পর আবার সেনাবাহিনীতে ফেরেন। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু সপরিবারে নিহত হওয়ার পর শওকত আলীকে সেনাবাহিনী থেকে অবসরে পাঠানো হয়।
কর্নেল (অব.) শওকত আলী ১৯৭৯ সালে শরীয়তপুর-২ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচন হন। সেবারে তিনি আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের হুইপের দায়িত্ব পান। তিনি শরীয়তপুর-২ আসন থেকে ছয়বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, ৭১ ফাউন্ডেশনের প্রধান উপদেষ্টা ছিলেন।

নিজস্ব প্রতিবেদক, এই সময়

Facebook Comments

Related Articles